"/> অন্তর্জাল

শহীদ কাদরী কি মারা গেছেন?
মেসবা আলম অর্ঘ্য -08/28/2016





হীদ কাদরী কি মারা গেছেন?

কাজল শাহনেওয়াজের পোস্টে দেখলাম। গুগল করলাম। প্রত্যেকটা নিউজ লিঙ্কে গেলাম। হাসপাতাল বেডের ছবি। শহীদ কাদরী মারা গেছেন। নীরা কাদরী নিশ্চিত করছেন।

বিশ্বাস করতে কষ্ট হচ্ছে, কেন যে…। খবরটা বিশ্বাস করার মত। অনেক দিন ধরে ভুগছেন। শারীরিক কষ্ট অনেক। যদিও যে কয়বার উনার সাথে কথা হয় টেলিফোনে, কখনো সেই জীর্ণতা স্পষ্ট করেন নাই। শিশুর স্ফূর্তি থাকতো গলার ভিতর। আর থাকতো কাব্য-পান্ডিত্যে মেশা নিখাদ রোমান্টিকতা। অনর্গল আউড়ায়ে যেতেন উনার প্রিয় প্রিয় রবীন্দ্রনাথ, সুধীন্দ্রনাথ, এলিয়ট, অডেন…। কেবল মাঝে মাঝে চাপা গলায় বলতেন – “আমার তো ব্যথা করে শরীরে”।

শারীরিক ব্যথা টেলিফোনে বোঝা যায় না, যতটা কবিতাপ্রেম যায়।

কত কথা যে উনি বলছেন, টেলিফোনে! অনেক কথা খুব মজার। একদিন বললেন- “আমি যদি গান গাইতে পারতাম, কখনো কবিতা লিখতাম না”। আমি বললাম – কেন? উনি বললেন “গান যেভাবে যোগাযোগ করে, কবিতা কি তা পারে”? আমি বললাম – কবীর সুমন তো তোমাকে অভিবাদন প্রিয়তমা পুরাই পাল্টাইয়া ফেলছেন। উনি বললেন উনি তখন নতুন এসেছেন বস্টনে। এক পরিচিত ইউনিভার্সিটি শিক্ষক একদিন বললেন- কলকাতার এক ছেলে আছে গান গায়, সুমন নাম। ‘তোমাকে অভিবাদন, প্রিয়তমা’ কবিতাটা গান করবে, কবির অনুমতি চাচ্ছে। কাদরী বললেন – “তখন আমি খুব ডিপ্রেস্‌ড। বস্টনে শীতকাল। চারপাশে অন্ধকার বরফ। দেশ থেকে চলে এসেছি আরো আগে। আমি চাইতাম বাংলায় কেউ যেন আমাকে মনে না রাখে। যেন আমি কখনো ছিলাম না। কিন্তু তা’ও কী এক ভাবনা আসলো… কী এক ভাবনা আসলো… ভাবলাম… ‘এক বর্ষার বৃষ্টিতে যদি মুছে যায় নাম / এত পথ হেঁটে এত জল ঘেঁটে কী তবে পেলাম? কী তবে পেলাম?’… গান দিয়েও যদি কেউ বাংলাদেশে আমাকে মনে রাখে, তো রাখুক।”

অগ্রজ লেজেন্ডদের সাথে সরাসরি দেখা করার বিষয়ে আমার তেমন কোনো আগ্রহ কাজ করে না। শহীদ কাদরীর ব্যাপারেও, মনের গভীরে, সেই অনাগ্রহই টের পেতাম। যদিও আসতে বলতেন, যদিও জানতাম মারা যাচ্ছেন, যদিও জানতাম উনি তখনো কাছেই – এই মাত্র কয়েক শো মাইল দূরে; একদিন দেখা হয়ে যাবে! সেই একদিন আর আসলো না।

কবিতার বই থেকে বের হয়ে, টেলিফোনে কথা বলে, কাদরী সাহেব পুনরায়, কবিতার বইয়ে ঢুকে গেলেন। এটাও খারাপ না।

অভিবাদন।

 

কবি শহীদ কাদরীর স্মৃতির প্রতি অন্তর্জাল.কম এর শ্রদ্ধা:

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 



মেসবা আলম অর্ঘ্য
জন্ম: ১২ ডিসেম্বর
কবি
অটোয়া, অন্টারিও, কানাডা।